পাওশির স্মৃতি কথা

পাওশির স্মৃতি কথা

সালাউদ্দিন

শিক্ষক ও সংগীত শিল্পী

কবি নজরুল ইনস্টিটিউট, ঢাকা।

পাওশি শান্ত, সৌম্য, সুন্দর এক ছাত্রী। সে স্পেশাল ইয়ার (২০১০) এ অধ্যয়নরত ছিল। পরবর্তীতে জেনেছি সে ইতোমধ্যে পৃথিবী ছেড়ে চলে গিয়েছে। মনে রাখার মতো সে প্রিয় মুখ ছিল। তাকে নিয়ে কি লিখব ভাবতেই পারছিনা। প্রকৃতপক্ষে এমন ছাত্রী খুব কমই পেয়েছি যে, একাধিক ভাষায় অবলীলাক্রমে বিভিন্ন শিল্পীর কন্ঠে গাওয়া গান সঠিকভাবে গাইতে পারতো। সে নজরুল সংগীত শিখলেও উচ্চাঙ্গ সংগীতে পারদশী ছিল। আমি যখন জানলাম সে আমার গুরু ভাই, গুরু ভাই ওস্তাদ অনীল কুমার সাহার ছাত্রী। তখন বুঝতে বাকি ছিলনা যে, সে সত্যিকার অর্থে সংগীতের সেবিকা। আমার মতো সেও কিরানা ঘরানার পদ্ধতি (ওস্তাদ এ দাউদ খান) অনুসরণ করতো। এ জন্য সংগীতে তার সাথে আমার আত্মিক সম্পর্ক গড়ে উঠে। আমার দু:খ প্রতিভাটি পূনাঙ্গরুপে বিকশিত হওয়ার সুযোগ পেলনা।

তাকে ভূলা যায় না। আমি এখনও তাকে স্মরণ করি। হোক না আধুনিক গান তবুও এগুলোর মাঝে তাকে দেখতে পাব, শুনতে পাব তার কন্ঠ-এ আমার শান্তনা। আমি চাই তার কতফুল ঝরে গেল এ্যালবামটির বহুল প্রচার হোক এ সে চিরজীবী হোক এ্যালবামের গানগুলোর মধ্য দিয়ে।

Leave a Reply